বৃহস্পতিবার, ১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুন্সিগঞ্জে ধলেশ্বরী নদীতে অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে গেল ৪ শতাধিক যাত্রী

প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
জুন ৫, ২০২৪ ১২:৪৪ পূর্বাহ্ণ

Loading

নিজস্ব প্রতিবেদক :
মুন্সিগঞ্জের সদর উপজেলার শাহ সিমেন্ট কারখানার কাছে ধলেশ্বরী নদীতে মঙলবার রাতে যাত্রীবাহী লঞ্চ ও বালুবাহী বাল্কহেডের সংঘর্ষে বাল্কহেড ডুবে যায়। এতে অল্পের জন্য প্রাণে বেচে গেল ৪ শতাধিক যাত্রী। দ্রুত যাত্রীবাহী লঞ্চ এমভি পুবালী-৯ এর তলা ফেটে গেলে লঞ্চটি দ্রুত তীরে নোঙর করে। এতে এদিকে বাল্কহেডে থাকা শ্রমীকরা সাতরিয়ে তীরে উঠতে সক্ষম।হয় বলে জানাগেছে। এই ঘটনায় খবর পেয়ে মুক্তারপুর নৌ পুলিশ ফাড়ির সদস্যরা ছুটে যান।
এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত রাত সাড়ে ১১ টা বাল্কহেডের সন্ধ্যান মিলেনি। তবে ঢাকা থেকে অপর একটি লঞ্চ এসে যাত্রীদের উদ্ধার করে নিয়ে যায়।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী যাত্রী সুত্রে জানাযায়, ঢাকা থেকে পটুয়াখালী গামী এমভি পুবালী ৯ প্রায় ৪ শতাধিক যাত্রী নিয়ে যাওয়ার পথে রাত ৯ টার দিকে মুন্সীগঞ্জের লঞ্চঘাটের অদূরে শাহ সিমেন্ট কারখানার কাছে আসলে হঠাৎ একটি বালুবাহী বাল্কহেডের সাথে সংঘর্ষ হয়। এতে বাল্কহেডটি কাতহয়ে ডুবে যায়। এসময় ফেটে যায় লঞ্চের তলা। এই অবস্থায় শুরু হয় যাত্রীদের আর্তচিৎকার।খবর পেয়ে পাশে মুক্তারপুর নৌ পুলিশ ফাড়ির সদস্যরা এসে লঞ্চটিতে থাকা যাত্রীদের সহযোগিতা করেন।
লঞ্চে থাকা যাত্রী বিবি রহিমা জানান, আমি লঞ্চে বসে আমার বাচ্চাকে রাতের খাবার খাওয়াচ্ছিলাম। এমন সময় দেখি হঠাৎ জাহাজ ঢাকা মেরে সাথে সাথে ডুবে যায়। বাক্লহেডের লোকজন নদীতে ঝাপ দেয়। লঞ্চের তলা ফেটে গেলে পানি ঊঠতে থাকলে যাত্রীদের মধ্যে আতংক দেখা যায়। শুরু চিকিৎকার। আমাদের চিৎকারে কয়েকটি ট্রলার এগিয়ে আসলে আমি আমার শ্বাশুড়িসহ ৭ জনকে নিয়ে মুন্সীগঞ্জ ঘাটে চলে আসি। এখন আমরা ঢাকায় কল্যানপুরে বাড়িতে ফিরে যাব। আর গ্রামের বাড়ি যাব না। অপর যাত্রী মো. দুলাল জানান, আমি ঘুমিয়েছিলাম লঞ্চে হঠাৎ বিকট শব্দ পেয়ে উঠে দেখি যাত্রীরা চিৎকার করছে। ঊঠে শুনি একটি বালু বোঝাই জাহাজ ডুবে গেছে। আর লঞ্চের তলা ফেটে পানি উঠতে থাকে। আমি এই দেখে ট্রালারে করে মুন্সীগঞ্জঘাটে চলে আসি।
এ ব্যাপারে মুন্তারপুর৷ নৌ পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ
মো. সাজ্জাত করিম খান জানান, এই ঘটনায় বাল্ক হেডের কোন শ্রমীক নিখোজ নেই। তবে এমভি পুবালী ৫ নামে আরেকটি লঞ্চ এসে যাত্রীদের উদ্ধার করে নিয়ে যায়। লঞ্চ এমভি পুবালী ৯ পুলিশ হেফাজতে আছে। রাতে বাল্ক হেডচলা নিষিদ্ধ প্রশ্নে তিনি জানান, বাল্কহেড শুনেছি রাত হয়ে যাওয়ায় নোঙর করে রাখা ছিল। এই সময় এসে বাল্কহেডকে ধাক্কা মারে। এই লঞ্চটি এরআগেও এমন আরেকটি দুর্ঘটনা ঘটিয়েছিল।

সর্বশেষ - মুন্সিগঞ্জ

আপনার জন্য নির্বাচিত

গজারিয়ায় মনসুর আহমেদ খান জিন্নাহ চেয়ারম্যান নির্বাচিত

মুন্সিগঞ্জে ব্যাডমিন্টন বালিকা দ্বৈতে অর্ণা ও স্মৃতি চ্যাম্পিয়ন

ঢাকাসহ সারা দেশে ১৫৪ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন

মুন্সিগঞ্জে সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব অভিজিৎ দাস ববি সম্মাননা পেলেন

মির্জা ফখরুলের জামিন আবেদনের শুনানি বৃহস্পতিবার

টঙ্গীবাড়িতে চেয়ারম্যান আরিফুল, ভাইস চেয়ারম্যান নাহিদ ও এমিলি

মুন্সিগঞ্জে সন্ধানী লাইফ ইন্সুরেন্সের উন্নয়ন ও প্রশিক্ষণ কর্মশালা

মুন্সিগঞ্জে দুই দিনব্যাপী ৪৫ তম বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলা

চেয়ারম্যান মনিরুল হক মিঠুর দায়িত্ব পালনে বাধা নেই

মুন্সিগঞ্জে পুকুরের পানিতে ডুবে ভাই-বোনের মৃত্যু