বৃহস্পতিবার, ১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গজারিয়ায় নির্বাচনে প্রচারণা শেষ হলেও প্রপাগান্ডা থেমে নেই

প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
মে ৬, ২০২৪ ২:২৮ অপরাহ্ণ

Loading

তানভীর হাসান :
আর মাত্র দুইদিন পরেই ৮ মে গজারিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। নির্বাচনের প্রচার-প্রচারও ইতিমধ্যে সোমবার রাত ১২ টার পর থেকে শেষ হয়ে গেছে। তবে নির্বাচনকে ঘিরে শেষ মুহুর্তে একটি পক্ষ নানা প্রপাগান্ডা চালিয়ে ভোটারদের বিভ্রান্ত করছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এদিকে শেষ সময়ে উপজেলা নির্বাচনকে ঘিরে যে কোন ধরণের অপ-প্রচার ও সহিংসতা এড়াতে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষ। সুষ্ঠু ভোট গ্রহণের জন্য ১৪ জন ম্যাজিস্ট্রেট ও ৬ প্লাটুন বিজিবি, র‌্যাব, প্রয়োজনীয় সংখ্যক পুলিশ, আনসার থাকবে বলে রিটানিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন অফিসার মোহাম্মদ বশির আহমেদ জানিয়েছেন।
এদিকে গজারিয়ায় নির্বাচনকে ঘিরে একটি মহল নানা অপপ্রচার বা প্রপাগান্ডা শুরু করেছেন বলে একাধিক অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভোটারদের বিভ্রান্তি করার লক্ষে ভোট কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ না করে জেলা সদরে এনে ভোট গ্রহণ করা হবে এমন প্রচারও করা হচ্ছে। এতে ভোটাররা বিভ্রান্তি হচ্ছেন বলেও স্থানীয় উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মসনুর আহম্মেদ খান জিন্নাহর পক্ষের সমর্থকরা অভিযোগ করেছেন।
এ ব্যাপারে মনসুর আহম্মেদ খান জিন্নার বড় ভাই কেন্দ্রিয় যুবলীগ নেতা হাফিজুর রহমান খান জানান, ভোট গ্রহণ শেষের ভোট বাক্্র জেলা সদরে নিয়ে গণণা করা হবে এমন ধরণের অপপ্রচারের কারণে উপজেলার ভোটাররা বিভ্রান্তি হচ্ছেন। আমরা চাই একটি সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন। কিন্তু প্রতিপক্ষের লোকজন এই ধরণের প্রপাগান্ডা চালিয়ে ভোটারদের মাঝে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করে জয়ী হতে চায়। এই ধরণের প্রচারের বিরুদ্ধে স্থানীয় প্রশাসন থেকে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা উচিত।
জেলা নির্বাচন অফিস সুত্রে জানাযায়, ভোট গ্রহনের জন্য ইতিমধ্যে ব্যালট পেপার ও বাক্্রসহ প্রয়োজনী সরঞ্জাম গজারিয়া উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ে চলে এসেছে। তবে ৮ মে জেলায় একটি মাত্র উপজেলায় নির্বাচন থাকায় নির্বাচন সুষ্ঠু করার লক্ষ্যে জেলার অধিকাংশ পুলিশকে নির্বাচনের দায়িত্বে নিযুক্ত করা হবে বলে নির্বাচন সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানাগেছে। এছাড়া ১৪ জন ম্যাজিস্ট্রেট ও ৬ প্লাটুন বিজিবি দায়িত্ব পালন করবেন। মাঠে বিজিবি ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতে স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে কাজ করবে।
জেলা নির্বাচন অফিসার ও গজারিয়া উপজেলা নির্বাচনের রির্টানিং অফিসার মোহাম্মদ বশির আহমেদ জানান, নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ করার লক্ষ্যে ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। কেন্দ্রে কঠোর নিরাপত্তা থাকবে। এরপরেও কোন কেন্দ্রে যদি বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয় প্রয়োজনে ওই ভোট কেন্দ্র স্থগিত বা বন্ধ রাখা হবে। নির্বাচনে কোন ধরণের প্রপাগান্ডায় ভোটারদের কান না দেয়ার জন্য বলেন। ভোট গ্রহণ শেষে কেন্দ্রেই গণণা করা হবে। এরপর ওই কেন্দ্রেই ফলাফল সিটে পোলিং এজেন্টেসহ নিরাপত্তার কাজে নিযুক্ত এমন পুলিশ অফিসারদের স্বাক্ষরসহ একটি সিট কেন্দ্রতেই সাটিয়ে দেয়ার বিধান। এরপর ফলাফল সিট সংশ্লিষ্ট উপজেলাতে নিয়ে আসা হবে। এক উপজেলা থেকে আরেক উপজেলায় ভোট বাক্্র এনে গননার কোন প্রশ্নই আসে না। এই ধরণের অপপ্রচারে ভোটারদের বিশ্বাস না করার জন্য পরামর্শ দেন জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বশির আহমদে।
স্থানীয় সুত্রে জানাযায়, গজারিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মোট ৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্ব›িদ্বতা করছেন। এরা হলেন বর্তমান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও গজারিয়া উপজেলা আ.লীগের সভাপতি মো. আমিরুল ইসলাম, উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক মনসুর আহমেদ খান জিন্নাহ, উপজেলা যুবলীগ নেতা আবুল বাশার ও সাবেক কেন্দ্রিয় ছাত্রলীগ নেতা আশরাফুল ইসলাম আকাশ। ভাইস চেয়ারম্যান পদে পুরুষ ৩ জন ও মহিলা ৪ জন প্রতিদ্ব›িদ্বতা করছেন। তবে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনে মুল প্রতিযোগিতা হবে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মো. আমিরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক মনসুর আহমেদ খান জিন্নাহর সাথে।

সর্বশেষ - মুন্সিগঞ্জ

আপনার জন্য নির্বাচিত

মুন্সিগঞ্জে সন্ধানী লাইফ ইন্সুরেন্সের উন্নয়ন ও প্রশিক্ষণ কর্মশালা

সাকিবের বার্ষিক আয় সাড়ে ৫ কোটি টাকা

অবসরের তিন বছরের মধ্যে নির্বাচন করতে পারবেন না সরকারি কর্মকর্তারা

টঙ্গীবাড়িতে চেয়ারম্যান আরিফুল, ভাইস চেয়ারম্যান নাহিদ ও এমিলি

গজারিয়ায় নির্বাচনে প্রচারণা শেষ হলেও প্রপাগান্ডা থেমে নেই

মুন্সিগঞ্জে দুই দিনব্যাপী ৪৫ তম বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলা

আইএমএফ ঋণের কিস্তি: সবার চোখ ১২ ডিসেম্বরের বৈঠকের দিকে

মুন্সিগঞ্জে ব্যাডমিন্টন বালিকা দ্বৈতে অর্ণা ও স্মৃতি চ্যাম্পিয়ন

টঙ্গীবাড়ি ও লৌহজংয়ে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ ভোট

ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতে নেই বাভুমা ও রাবাদা